ফ্রিজের গ্যাসের দাম কত ২০২৪

অনেকেই জানেন না ফ্রিজে এক প্রকারের গ্যাস রয়েছে। যা প্রতি কয়েক বছর পর পর গ্যাস পরিবর্তন করতে হয়। ফ্রিজের নিচের অংশে ছোট পরিসরে এক প্রকারের গ্যাস সিলিন্ডার রয়েছে। যেখানে নিদিষ্ট পরিমাণে ফ্রিজের জন্য গ্যাস মজুদ থাকে। এই গ্যাস সম্পূর্ণ ফ্রিজকে ঠাণ্ডা হতে সাহায্য করে। কোনো কারণে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ হয়ে গেলে বা গ্যাস ফুরিয়ে গেলে ফ্রিজের খাবার গুলো নষ্ট হতে থাকবে। আজকের পোস্টে  ফ্রিজের গ্যাসের দাম কত এই নিয়ে আলোচনা করবো। কিভাকে গ্যাস ফুরিয়ে গেছে তা জানবেন এবং গ্যাস কিভাবে পরিবর্তন করতে হয় সেই পদ্ধতি জানতে পোস্ট টি সম্পূর্ণ পড়বেন।

ফ্রিজের গ্যাস

শুধু যে ফ্রিজে গ্যাস থাকে তাই নয় এসি তে এই গ্যাস ব্যবহার করা হয়। এই গ্যাসের মাধ্যমে ফ্রিজের ভিতরের অংশ ঠাণ্ডা হতে থাকে। এক সময় গ্যাস গুলো বরফ জমাতে সাহায্য করে। অনেক সময় ফ্রিজে গ্যাস থাকা স্বত্বেও ফ্রিজ চলাচল বা ভিতরের অংশ ঠাণ্ডা হয়ে বন্ধ হয়ে যায়। এর কারণ অনেক সময় গ্যাস লাইনের পাইপ টি লুস বা লিক হয়ে যায়। যার কারণে ফ্রিজে গ্যাস চলাচল ফ্রিজে প্রবেশ করতে পারে না। তাই ফ্রিজের গ্যাস লাইন মাঝে মাঝে পরিষ্কার করে নিবেন।

ফ্রিজের গ্যাসের দাম কত

বাজারে বিভিন্ন মডেলর গ্যাস সিলিন্ডার রয়েছে। যেগুলো মূলত ফ্রিজের জন্য তৈরি করা হয়েছে। ২৫০০ টাকার মধ্যে সাধারণ মানের ফ্রিজের গ্যাস পেয়ে যাবেন। কিছু গ্যাসের মূল্য ২৭০০ থেকে ২৮০০ টাকার মধ্যে। আরও উন্নতমানের গ্যাস রয়েছে, যেগুলোর দাম ৩০০০ হাজারের বেশি হয়ে থাকে। গ্যাস ব্যবহারের ক্ষেত্রে ভালো মানের গ্যাস ব্যবহার করবেন। এতে করে ফ্রিজে সঠিক মাত্রায় গ্যাস সরবরা হবে। এবং ফ্রিজ অনেক ঠাণ্ডা থাকবে ও খাবার দীর্ঘ দিন সতেজ রাখবে।  ফ্রিজের জন্য R৩২ মডেলের গ্যাস টি ব্যবহার করতে পারেন। এর ওজন ৭ কেজি। এই গ্যাসের রানিং পেশার থাকে ১১০ থেকে ১১৫ psi হয়ে থাকে। এই ফ্রিজের গ্যাসের মূল্য ৩২০০ টাকা।

ফ্রিজের গ্যাসের আজকের দাম কত ২০২৪

এখনাপনাকে উন্নতমানের গ্যাস মডেল সম্পর্কে জানাবো। যার দাম আগের গ্যাসের ছেয়া বেশি হবে। এটি দীর্ঘ দিন ব্যবহার করতে পারবেন। বেশির ভাগ ক্ষেত্রে এই গ্যাস টি সবাই ফ্রিজে ব্যবহার করে থাকে। R১৩৪ এই গ্যাস টির মূল্য ৭০০০ টাকা। ডিপ এবং সরমাল উভয় ফ্রিজের জন্য ব্যবহার করতে পারবেন। এই সিলিন্ডারে ১৩ কেজি ৬০০ গ্রাম ওজনের গ্যাস রয়েছে। যা দীর্ঘ সময় ব্যবহার করলেও শেষ হবে না। এই গ্যাসের  Back পেশার থাকে ৮৫ থেকে ৯৮ PSI। এবং রানিং পেশার থাকে ১২ থেকে ১৫ PSI। যার ফলে অল্প সময়ের মধ্যেও সম্পূর্ণ ফ্রিজ ঠাণ্ডা হতে সাহায্য করে।

ফ্রিজের গ্যাসের নাম কি

ফ্রেয়ন গ্যাস ফ্রিজে ব্যবহার করা হয়। তাছাড়া বিভিন্ন মডেলের ফ্রিজের গ্যাস রয়েছে। ফ্রিজে R600a এই গ্যাসও ব্যবহার করা হয়ে থাকে। গ্যাসের নাম হচ্ছে  “মিথাইল প্রোফেন” । এছাড়াও এটিকে আইসোবিউটেন বলে ডাকা হয়। এই গ্যাস ব্যবহারের ৬০% বিদ্যুৎ খরচ কম হয়। এর পাশা-পাশি R১৩৪a গ্যাস ফ্রিজে ব্যবহার করা হয়। ফ্রিজের রানিং পেশার বেশি পাওয়ার জন্য ১৩ কেজি ওজনের R১৩৪ গ্যাস ব্যবহিত হয়। R৩২ গ্যাস থেকে রানিং পেশার ১১০ থেকে ১১৫ পর্যন্ত পাওয়া যায়। মূলত উপরোক্ত এই গাসের যেকোনো একটি ফ্রিজের জন্য ব্যবহার করতে পারবেন।

ফ্রিজের গ্যাস চার্জ করার নিয়ম

সঠিক নিয়মে ফ্রিজের গ্যাস চার্জ করতে হয়। কিভাবে ফ্রিজের গ্যাস চার্জ করবেন আপনাকে শিখিয়ে দিয়েছি এখানে। ফ্রিজের গ্যাস চার্জ করতে কিছু যন্ত্র প্রয়োজন হবে। যেগুলো আপনাদের কাছে নেই। বলতে গেলে বাসায় নিজেরা গ্যাস চার্জ করতে পারবেন না। এজন্য যেখানে ফ্রিজের গ্যাস পরিবর্তন করা হয় বা ফ্রিজ সার্ভিসিং করা হয় সে সকল দোকান থেকে করতে হবে। নিজেরা কিভাবে ফ্রিজের গ্যাস চার্জ  করবেন তা জানার জন্য ইউটুব থেকে ভিডিও দেখতে হবে। কারণ লেখার মাধ্যমে সেগুলো বুঝতে পারবেন না।

ফ্রিজের কম্প্রেসারের দাম কত

কম্প্রেসার মানে হচ্ছে কম্প্রেস করা বা সংকুচিত করা। এর মাধ্যমে ফ্রিজ কে ঠাণ্ডা বাসাত প্রদান করে। ফ্রিজ থেকে গরম বাসাত কে বের কে দেয়। বিভিন্ন মডেলের ফ্রিজের কম্প্রেসার রয়েছে, যেগুলোর দাম ভিন্ন ভিন্ন। বিভিন্ন ব্রান্ডের ফ্রিজের জন্য আলাদা আলাদা কম্প্রেসার ব্যবহার করা হয়। ফ্রিজের কম্প্রেসার মেশিনের দাম ৩০০০ টাকা। এর চেয়ে বেশি দামেও অনেক কম্প্রেসার পাওয়া যায়। কম্প্রেসার পরিবর্তনের ক্ষেত্রে উন্নতমানের গুলা ব্যবহার করবেন।

আপনারা ৫ ধরনের কম্প্রেসার কিনতে পারবেন। রেসিপ্রকেটিং কম্প্রেসার, রোটারি ভেন কম্প্রেসার, স্ক্রল কম্প্রেসার,স্ক্রু কম্প্রেসার মেশিন এবং সেন্ট্রিফিউগাল কম্প্রেসার। ৩৫০০ বা ৪০০ হাজারের মধ্যেও ভালো মানের কম্প্রেসার কিনতে পারবেন। উন্নতমানের ফ্রিজের কম্প্রেসার ৫০০০ টাকার মধ্যে বিক্রি করা হয়। নিচে কয়কটি কম্প্রেসারের নাম ও এর মূল্য দেওয়া আছে দেখেনিন।

  • ওয়ালটন কম্প্রেসার ৩৫০০ টাকা
  • এলজি কম্প্রেসার ৩৮০০ টাকা।
  • Tecumseh compressor ৪২০০ টাকা
  • QD compressor ৩০০০ টাকা

শেষ কথা

বাজারে বিভিন্ন মডেলের ফ্রিজের জন্য গ্যাস রয়েছে। এগুলোর দাম এর কুয়ালিতি বা ওজনের উপরে নির্ভর করবে। যেকোনো সময় এর দাম পরিবর্তন হতে পারে। আশা করছি এই পোস্ট থেকে ফ্রিজের গ্যাসের দাম কত  এবং ফ্রিজের গ্যাস পরিবর্তনের নিয়ম জানতে পেরেছেন। এই রকম বাজার দর সম্পর্কে আরও জানতে আমার সাথেই থাকবেন। বিভিন্ন পণ্যর দাম সম্পর্কে আপডেট তথ্য এই ওয়েবসাইটে শেয়ার করে থাকি। পোস্ট টি শেষ পর্যন্ত পড়ার জন্য ধন্যবাদ।

About Foysal Ahmed

আমি মোঃ ফয়সাল আহমেদ। দীর্ঘদিন যাবত আমি অনলাইন কাজের সাথে জড়িত। আজকের দাম কত সাইটে আমি আমাদের দৈনন্দিন নিত্য প্রয়োজনীয় সকল প্রকার পণ্যের দাম নিয়ে আলোচনা করে থাকি। আশা করি আমাদের সাইট থেকে প্রায় সকল ধরনের জিনিসের দাম সম্পর্কে অবগত হতে পারবেন।

View all posts by Foysal Ahmed →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *